Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৩rd এপ্রিল ২০১৯

সুন্দরবনে জাকির বাহিনীর আস্তানা থেকে অবৈদ্ধ অস্ত্র ও গোলা উদ্ধার


প্রকাশন তারিখ : 2019-03-28

গত ২৭ মার্চ ২০১৯ ইং তারিখ ভোরে বরগুনা জেলার পাথরঘাটা থানার পদ্মা মাঝের চরে বিচ্ছিন্ন বনাঞ্চলের চর এলাকায় কোস্ট গার্ডের ডাকাত বিরোধী অভিযানে ০৫ টি দেশীয় এক নলা বন্দুক, ০১ টি সিঙ্গেল সুটার পিস্তল ও ২১ রাউন্ড তাজা গুলি উদ্ধার করা হয়। উল্লেখ্য গত ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং সুন্দরবনের গভীরে সোনাইমুখী খাল সংলগ্ন এলাকায় কুখ্যাত ডাকাত দল আছাবুর বাহিনীর সাথে কোস্ট গার্ডের বন্দুক যুদ্ধে আছাবুর বাহিনীর এক ডাকাত সদস্য নিহত এবং বাকিরা পালিয়ে গিয়েছিল। পরবর্তীতে গোয়েন্দা তথ্যের মাধ্যমে জানা যায় যে, আছাবুর বাহিনীর দলনেতা আছাবুর পালিয়ে থাকলেও তার অন্যতম সহযোগী জাকির বাহিনীর ডাকাত দল অস্ত্রসহ বরগুনা জেলার পাখরঘাটায় আশ্রয় নেয় এবং গত ১৪ মার্চ ২০১৯ ইং পাথরঘাটা থানার চরদোয়ানী এলাকায় নবগঠিত জাকির বাহিনীর গুলির আঘাতে মোঃ আলাউদ্দিন নামের এক নিরীহ মাঝি মারা যায়। সেই সূত্র ধরে কোস্ট গার্ড বাহিনী গোপনে তথ্য অনুসন্ধান করতঃ জানতে পারে যে, পাথরঘাটার থানার পদ্মা মাঝের চরের দূর্গম এলাকায় জাকির বাহিনীর সদস্যগণ অস্ত্রসহ আশ্রয় নিয়েছে। উক্ত অপারেশন পরিচালনার জন্য ঢাকা থেকে সহকারী পরিচালক (গোয়েন্দা) লেঃ কমান্ডার এম হামিদুল ইসলাম এর নেতৃত্বে এবং পাথরঘাটা কোস্ট গার্ড বাহিনী সদস্যদের সহায়তায় অভিযান পরিচালনা করলে প্রাকৃতিক দুর্গম পরিবেশের কারনে কোস্ট গার্ড বাহিনীর উপস্থিতি বুঝতে পেরে ডাকাতদল দ্রæত বনের ভিতর পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে তাদের আস্থানায় তল্লাশি চালিয়ে তাদের ব্যবহৃত অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ এবং অপহরণের বিভিন্ন সামগ্রী উদ্ধার করা হয়। জব্দকৃত অস্ত্র, গোলাবারুদ ও অপহরণ সামগ্রী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য পাথরঘাটা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড বাহিনীর এখতিয়ারভূক্ত এলাকাসমূহে আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রন ও জননিরাপত্তার পাশাপাশি সুন্দরবনে জলদস্যুতা, বনদস্যুতা ও ডাকাতি দমনে কোস্ট গার্ডের অভিযান অব্যাহত থাকবে।  


Share with :

Facebook Facebook